Influvax Vaccine 0.5ml
Influvax Vaccine 0.5ml

Influvax Vaccine 0.5ml

Generic Name : Inactivated influenza vaccine
Brand Name : Influvax Vaccine 0.5ml
Strength : 0.5ml
Price: 700.00 TK Stock: YES
User for : HUMAN
Note : If medicine quantity 1 = 1 Strip ( plz see the description)

Share in Social Media


Product Details

Influenza বা Flu কি?

Influenza বা Flu একটি মারাত্বক ছোঁয়াচে রোগ যা ইনফ্লুয়েঞ্জা ভাইরাস  A  এবং B এর কারণে হয়ে থাকে।  ফ্লু মাঝারি থেকে মারাত্বক অসুস্থতা ঘটাতে পারে যা কিনা কোন কোন ক্ষেত্রে  মৃত্যুর কারণও হতে পারে।

Influenza বা Flu এর কারণে প্রতিবছর সারাবিশ্বে প্রায় ৫০ লাখ মানুষ মারাত্বক অসুস্থতায় ভোগে এবং প্রায় ২.৫ থেকে ৫ লাখ মানুষ মৃত্যুবরণ করে।

কিভাবে Flu ছড়ায়?

 Flu সাধারণত মানুষের হাঁচি, কাশি এবং শ্বাস-প্রশ্বাসের মাধ্যমে ছড়ায়।

যে সমস্ত বস্তুর উপর ইনফ্লুয়েঞ্জা ভাইরাস থাকে সেগুলি স্পর্শ করার পর যদি ঐ ব্যক্তি তার নাক বা মুখ স্পর্শ করে তবে তা থেকে তার ইনফ্লুয়েঞ্জা হতে পারে। অধিকাংশ  ক্ষেত্রে সুস্থ ব্যক্তি ইনফ্লুয়েঞ্জার উপসর্গ প্রকাশের একদিন পূর্ব হতে ইনফ্লুয়েঞ্জা দেখা দেয়ার পাঁচ থেকে সাত দিন পর পর্যন্ত আরেক জনকে সংক্রমিত করতে পারে।

Flu কখন ছড়ায়?

বিশ্ব ব্যাপি প্রতিবছর এই রোগের প্রাদুর্ভাব দেখা যায়। গবেষণায় দেখা গেছে, উত্তর গোলার্ধে  অক্টোবর হতে এপ্রিল পর্যন্ত এবং  দক্ষিণ গোলার্ধে সেপ্টেম্ববর হতে মে পর্যন্ত এই রোগের প্রাদুর্ভাব থাকে।

বাংলাদেশ উত্তর গোলার্ধে অবস্থিত বলে অক্টোবর হতে এপ্রিল পর্যন্ত এই রোগের প্রাদুর্ভাব থাকে। কিন্তু

আমাদের দেশে আবহাওয়া এর কারণে দেখা যায়, সারা বছরই ফ্লু এর প্রাদুর্ভাব থাকে। 

এই বছর Flu ভ্যাকসিন কেন বেশি জরুরী?

এই বছর COVID-19 এবং ফ্লু সংক্পেরমণ একসাথে হওয়ার সম্ভাবনা বেশি।

সাম্প্রতিক একটি গবেষণায় দেখা গেছে যে COVID-19 এবং ইনফ্লুয়েঞ্জা সহসংক্রমণ শুধু COVID-19 থেকে বেশি গুরুতর।

এছাড়াও ইনফ্লুয়েঞ্জা এবং COVID-19 সহ সংক্রমণ উচ্চ ঝুঁকিযুক্ত রোগীদের যেমন বয়স্ক ব্যক্তি, দীর্ঘমেয়াদী রোগে আক্রান্ত রোগী হৃদরোগী, কিডনী রোগী, ডায়াবেটিস রোগী, অ্যাজমা রোগী খুব গুরুতর হয়ে যেতে পারে।

Flu ভ্যাকসিন COVID-19 থেকে রক্ষা করবে না। তবে ইনফ্লুয়েঞ্জা থেকে সুরক্ষিত হয়ে, জ্বর এবং শ্বাসকষ্টের হ্রাস পাবে। যার ফলে Flu হাসপাতালে ভর্তি হওয়া বা যাওয়ার পরিমান অনেক কমে যাবে।

সুতরাং সবাইকে বিশেষভাবে উচ্চ ঝুঁকিপূর্ণ ব্যক্তিদের  flu সিজনের আগে অবশ্যই flu ভ্যাকসিন দেওয়া উচিত।

Flu এর লক্ষন সমূহ কি কি?

জ্বর (অধিকাংশ ক্ষেত্রে তীব্র), মাথাব্যাথা, মারাত্বক দূর্বলতা, শুকনো কাশি, গলা ব্যাথা, সর্দি/নাক দিয়ে পানি পড়া, মাংসপেশিতে ব্যাথা, বমিভাব এবং ডায়রিয়া হতে পারে। তবে ডায়রিয়া বয়স্কদের তুলনায় বাচ্চাদের ক্ষেত্রে অধিক মাত্রায় হয়।

Flu কি কি জটিলতা সৃষ্টি করে?

নিউমোনিয়া

অন্যান্য ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণ

হৃদরোগ ও শ্বাস-প্রশ্বাসজনিত

রোগের অবনতি

মধ্যকর্ণের প্রদাহ

জ্বর

মৃত্যু (সাধারণত বয়োবৃদ্ধ)

Flu এবং সাধারণ সর্দি-জ্বর কি একই?

আমরা অনেকেই ফ্লু এবং সাধারণ সর্দি-জ্বর একই রোগ মনে করি। কিন্তু ফ্লু  ভাইরাস, সাধারণ সর্দি-জ্বর ভাইরাস হতে সম্পূর্ণ  ভিন্ন, যা সাধারণ সর্দি-জ্বর  ভাইরাস হতে অনেক বেশি ভয়াবহতা তৈরি করতে সক্ষম।

Flu কতটা মারাত্বক?

Flu তেমন কোন শারীরিক সমস্যার সৃষ্টি করে না এবং এমনিতেই সেরে যায়। কিন্তু ক্ষেত্র বিশেষে এই রোগ মারাত্বক সমস্যার সৃষ্টি করে। ফ্লু এর উপসর্গগুলি অনেকটা সাধারণ সর্দি কাশির মতো। তাই আনেকেই সর্দি-কাশি ভেবে এই রোগকে অবহেলা করে যা কখনো কখনো মারাত্বক জটিল সমস্যার সৃষ্টি করতে পারে।

বিশেষ করে বয়োবৃদ্ধদের (যাদের বয়স ৬৫ বছরের ঊর্দ্ধে) ক্ষেত্রে ফ্লু থেকে সাবধানতা গ্রহন করা অতীব জরুরী। কারণ গবেষণায় দেখা গেছে ফ্লু এর কারণে যত লোক মারা যায় তার অধিকাংশই বয়োবৃদ্ধ। বয়োবৃদ্ধ ছাড়াও পূর্ণবয়স্ক এবং শিশু যারা শ্বাস-প্রশ্বাস জনিত রোগ (অ্যাজমা), হৃদরোগ, কিডনিজনিত সমস্যায় ভুকছে তাদের জন্য ফ্লু ঝুকিপূর্ণ। এছাড়াও এই রোগের কারণে কর্মক্ষেত্রে এবং শিক্ষার্থীদের অনুপস্থিতির হার বেড়ে যায়।

 

কাদের ক্ষেত্রে Influenza বা Flu তে আক্তান্ত হওয়ার ঝুঁকি সবচাইতে বেশি?

অ্যাজমা এবং  COPD এর রোগী

হৃদরোগী,ডায়াবিটিসের রোগী, কিডনি এবং লিভার সমস্যায় ভুকছে এমন রোগী

শিশুরা বিশেষত ২ বছরের কম যাদের বয়স

গর্ভবতী মহিলা

৬০ বছরের ঊর্দ্ধেযাদের বয়স 

যাদের শরীরের রোগ প্রতিরোধ ¶মতা অনেক কম যেমন এইডস এর রোগী

অন্যদেশে ভ্রমণকারী

Influenza বা Flu প্রতিরোধ করা যায়?

স্বাস্থ্য  সম্মত জীবন যাপন করা

হাঁচি, কাশির সময় মুখে রুমাল/টিস্যু দ্বারা নাক, মুখ ঢেকে রাখতে হবে

সাবান দিয়ে বারবার ভালোভাবে হাত ধুতে হবে অথবা হ্যান্ড রাব ব্যবহার  করতে হবে

অকারণে হাত চোখে, নাকে এবং মূখে দেওয়ার অভ্যাস ত্যাগ করতে হবে

অসুস্থ রোগীর সেবা করার ক্ষেত্রে  পর্যাপ্ত সাবধাণতা অবলম্বন করতে হবে

ভ্যাকসিনেশন

সচেতন হোন, সুস্থ থাকুন

 


RELATED PRODUCTS